১০ বছর পেরিয়ে এখনো অক্ষত যেসব অলিম্পিক রেকর্ড

বেস্ট বায়োস্কোপ, ঢাকা: রেকর্ড গড়াই হয় যেন ভাঙার জন্য। আজ এক জনের ঝুলিতে, তো কাল অন্য কারও। সময়ের সঙ্গে রেকর্ডও হাতবদল হতে থাকে। প্রত্যেকই আগের রেকর্ড ভেঙে নিজেকে নিয়ে যান অনন্য উচ্চতায়। তবে খেলার জগতে এমন কিছু রেকর্ড রয়েছে যা ১৫-২০ বছরেও কেউ ভাঙেনি।

তাকে ছোঁয়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন পরের প্রজন্মের অ্যাথলেটরা। দেখুন পুরুষ বিভাগে কিছু চিরন্তন রেকর্ড যা আজও জ্বলজ্বল করছে।

১. মাইকেল জনসন

পুরুষ বিভাগে ২০০ মিটার ও ৪০০ মিটার দৌড়ে তিনি ছিলেন অপ্রতিদ্বন্দ্বী। যদিও ২০০৮ সালে উসেইন বোল্ট ২০০ মিটারের রেকর্ড ভেঙে দিলেও ৪৩.১৮ সেকেন্ডে ৪০০ মিটার দৌড়ে মাইকেল জনসনের রেকর্ড প্রায় ১৭ বছর ধরে সুরক্ষিত রয়েছে এখনও।

 

২. হিচাম এল গুয়েরুজ

১৭ বছর আগে মরক্কোর অ্যাথলিট হিচাম এল গুয়েরুজ দেড় হাজার মিটার দৌড়ে বিশ্ব রেকর্ড করেছিলেন মাত্র ৩.২৭.৬৫ সেকেন্ডে। স্পেনে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে তৈরি সেই রেকর্ড আজও অটুট রয়েছে।

৩. কেভিন ইয়ং

আমেরিকান অ্যাথলিট কেভিন ইয়ং ৪০০ মিটার হার্ডলেতে রেকর্ড করেছিলেন ১৯৯২তে বার্সেলোনায়। এডউইন মোজেসের ৪৭.০২ সেকেন্ডের রেকর্ড ভেঙে তিনি ৪০.৭৮ সেকেন্ডে ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করেছিলেন।

৪. জেভিয়ের সোতোমেয়র

নিজের রেকর্ড নিজে ভেঙেছেন। আবার নিজেই গড়েছেন। তিনি কিউবার অ্যাথলিট জেভিয়ের সোতোমেয়র। ১৯৮৮ সালে সুইডেনের পেত্রিক জোবার্গের রেকর্ড ভেঙে ২.৪৩ মিটার হাইজাম্প দেন। পরের বছরই নিজের রেকর্ড ভেঙে ২.৪৪ মিটার হাই জাম্প দিয়ে নতুন নজির গড়েন। ফের ১৯৯৩ সালে স্পেনে ২.৪৫ মিটার জাম্প দিয়ে নতুন রেকর্ড গড়েন। তার পর কেউ সেই উচ্চতায় এখনও পৌঁছতে পারেননি।

৫. মাইক পাওয়েল

প্রায় ২৫ বছর আগে মার্কিন অ্যাথলিট মাইক পাওয়েল লং জাম্পের রেকর্ড গড়েছিলেন। সেটা আজও অটুট রয়েছে। ১৯৯১ সালে ৩০ অগস্ট টোকিওতে মার্কিন অ্যাথলিট বব বিমনের রেকর্ড ভেঙে ৮.৯৫ মিটার লং জাম্প দিয়েছিলেন পাওয়েল।

৬. জোনাথন এডওয়ার্ডস

২১ বছর আগে গ্রেট ব্রিটেনের অ্যাথলিট জোনাথন এডওয়ার্ডস ট্রিপল জাম্পে রেকর্ড করেছিলেন, যা আজও কেউ ভাঙতে পারেননি। সুইডেনের গুটেবার্গে জোনাথন ১৮.২৯ মিটার ট্রিপল জাম্প দিয়ে নজির গড়েছিলেন। তাঁর ধারে কাছে রয়েছেন মার্কিন অ্যাথেলিট ক্রিশ্চিয়ান টেলর। ২০১৫-তে বেজিং-এ ১৮.২১ মিটার ট্রিপল জাম্প দিয়েছিলেন।

৭. র‌্যান্ডি বার্নেস

শটপাটে ওয়ার্ল্ড রেকর্ড তৈরি হয়েছিল ১৯৯০ সালে ২০ মে। ক্যালিফোর্নিয়ায় মার্কিন অ্যাথলিট র‌্যান্ডি বার্নেস দুই বছর আগে তত্কালীন পূর্ব জার্মানির উলফ টিমারম্যানের ২৩.০৬ মিটারের রেকর্ড ভেঙে ২৩.১২ মিটারে নতুন রেকর্ডের নজির গড়েছিলেন।

৮. জুরগেন শুল্ট

৩০ বছর আগে পূর্ব জার্মানির জুরেগন শুল্ট ডিসকাসে ৭৪.০৮ মিটার ছুড়ে ওয়ার্ল্ড রেকর্ড গড়েন। তাঁর পরেই রয়েছেন লিথুয়ানিয়ান অ্যাথলিট ভিরজিলিজাস আলেঙ্কা। ২০০০ সালে ৭৩.৮৮ মিটার ডিসকাস ছোড়েন।

৯. ইউরি সেদিইখ

হ্যামারে তিন বার ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের নজির রয়েছে রাশিয়ান অ্যাথলিট ইউরি সেদিইখ। ১৯৮৪, ১৯৮৬-র জুন এবং সেই বছরেই অগস্টে নিজের রেকর্ড ভেঙে নিজেই নতুন রেকর্ড গড়েন। শেষ বারে হ্যামারে তাঁর রেকর্ড ছিল ৮৬.৭৪ মিটার। ৩০ বছর ধরে এই রেকর্ড সুরক্ষিত রয়েছে।

১০. জ্যান জেলেজনি

চেক প্রজাতন্ত্রের জ্যান জেলেজিনও পর পর তিন বার জ্যাভেলিনে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন। শেষ বার জার্মানির জেনায় ১৯৯৬ সালে ৯৮.৪৮ মিটার আজও জ্যাভেলিনে বিশ্ব রেকর্ড।

১১ মার্কিন দল ৪x৪০০ মিটার রিলেতে ২৩ বছর আগে যে রেকর্ড গড়েছিল এখনও কোনও দেশ তা ভাঙতে পারেনি। ১৯৯৩ সালে ২২ অগস্ট মার্কিন দল মাত্র ২ মিনিট ৫৪.২৯ সেকেন্ডে ৪x৪০০ মিটার রিলে সম্পূর্ণ করেছিল।

দেখা যাক এবারের রিও অলিম্পিকে এই রেকর্ড গুরো অক্ষত থাকে নাকি নতুন কারো মুকুটে যোগ হয়।

বেস্ট বায়োস্কোপ স্পোর্টস
২ আগস্ট ২০১৬

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: