গান এবং গান, খানিকটা ইউটিউব

বেস্ট বায়োস্কোপ, ঢাকা: কিশোর থেকে যুবকের বয়োসন্ধিতেই বাংলাদেশি আইডলে, তারপর ইউটিউবে স্বল্পদৈর্ঘ্য হাস্যরসাত্মক কিছু ভিডিওতে দেখা যায় তাকে। এয়ারটেল নিবেদিত ‘মাঙ্কি বিজনেস’ টেলিফিলমে প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের পর থেকে দর্শক মনের গভীরে জায়গা করে নেয় এই তরুণ অভিনেতা। ২০১৫ সালের শেষের দিকে সৌভিক আহমেদ এবং তার যৌথ প্রযোজনায় একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলে বসেন যার নাম ‘গান ফ্রেন্ডস’। বছর ঘুরতে না ঘুরতেই যে চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা লাখ পেরিয়ে।

হ্যা, বলা হচ্ছে জনপ্রিয় ইউটিউবার তামিম মৃধার কথা। যার হাতে গড়া ‘গান ফ্রেন্ডস’ এখন অন্যতম জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল। তিনি বলেন, `আসলে চ্যানেল খোলার সময় কখনো ভাবিনি এত দ্রূত চ্যানেলটি বড় হয়ে উঠবে। মূলত চ্যানেলের কন্সেপ্টটা ছিল সৌভিকের। হারমোনিয়াম আর গিটারের সমন্বয়ে গানের এপিক প্যারোডি বানানোই ছিল মূল উদ্দেশ্য। আমাদের কাজ সবার ভালো লেগেছে, এই অনেক।’

সম্প্রতি নতুন একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে চ্যানেলটি। ‘মাথা পুরা গেসে’ নামের ভিডিওটি আপলোডের ৩ দিনের মাথায় ভিডিওটি দেখা হয়েছে ২ লাখেরও বেশি। ‘গান ফ্রেন্ডস’ এর ভিডিও সংখ্যা যখন ছয়টি তখন এক লাখ সাবস্ক্রাইবারের স্বাদ পায় চ্যানেলটি। এ ব্যাপারে তামিম বলেন, ‘আমি আগেও লক্ষ করেছি আমরা ভিডিও আপলোডের সঙ্গে সঙ্গেই ভিউ দ্রুত বাড়তে থাকে। মনে হয় যেন দর্শকেরা আমাদের জন্য অপেক্ষা করে বসেই থাকেন যে, কখন আমরা একটি ভিডিও আপলোড দিবো সে প্রতীক্ষায়। দর্শকদের ভালোবাসায় আসলেই আমরা সিক্ত।’

তিনি আরও বলেন, ‘নতুন ভিডিও শ্যুটের সময় একটি মজার ঘটনার সম্মুখীন হতে হয়েছিল সবাইকে। ভিডিওটিতে চমকস্বরূপ উপস্থিত ছিলেন সালমান মুক্তাদির। ভিডিওতে সালমানের প্রবেশ মুহূর্তে দেখা যায় সে গিটার বাজাচ্ছে এবং চারপাশে ধোঁয়া উড়ছে। ধোঁয়াটা মূলত তৈরি করা হয়েছিল আদিম প্রক্রিয়ায় শুধুমাত্র নারিকেলের ছোলা জাতীয় কাঁচামাল ব্যবহার করে। যার ফলাফল শুভ হয়নি। পরে অবশ্য আধুনিক উপায়ে ধোঁয়া তৈরি করেই শ্যুট শেষ করা হয়েছে।’

‘শুটের সময় সকলের চোখ বেয়ে পানি গড়াচ্ছিল’ এই বলে হেসেই দিলেন তামিম মৃধা। ওস্তাদ-শিষ্যরূপে তামিম-সৌভিকের রসায়নটা যেনো দর্শকদের একটু বেশিই মন মাতায়।

তবে আসছে সপ্তাহেই এমন এক ভিডিও আপলোড করবে তারা যেটায় তাদেরকে দেখা যাবে সম্পূর্ণ ভিন্ন চরিত্রে। দর্শকদেরও করে দিবে চমক।

এ বিষয়ে তামিম বলেন, ‘‘এই ভিডিওটির শুট অনেক আগে শেষ হয়েছে। তবে আপলোড করা হয়নি। এই প্রথম এত দ্রূত আরও একটি ভিডিও আপলোড করতে যাচ্ছি। আমি আর সৌভিক এই ভিডিওতে গুরু-শিষ্যের আদলে দেখা দিবো না ঠিকই, তবে ঠিক কি দেখাতে চলেছি তািএখনি বলবো না। কিছুটা রহস্য থাকু ।’’

চ্যানেল থেকে প্রত্যাশ্যার তুলনায় প্রাপ্তি কতটুকু, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘‘আল্লাহর মেহেরবানীতে প্রত্যাশা যতটুকু করেছিলাম প্রাপ্তিটা তার থেকে বরাবরই বেশি। দর্শকরা আমাদের প্যারোডিগুলো পছন্দ করে শেয়ার দেন, প্রশংসা করেন। এখানেই আমার প্রাপ্তি।’

ইউটিউব ছাড়াও কি করছেন জিজ্ঞাসা করলে জানান, ‘এতদিন বাংলালিংকের সাথে কাজ করতাম,এখন অনলাইন কমার্শিয়ালের দিকে মনোযোগ দিচ্ছি।’ সব মিলিয়ে এই তরুণ ইউটিউবার কাটাচ্ছেন ব্যস্ত সময়।

বেস্ট বায়োস্কোপ বিনোদন
১৭ অক্টোবর ২০১৬

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: