প্রথম ম্যাচেই রহমতগঞ্জের জয়

বেস্ট বায়োস্কোপ, ঢাকা:  বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ফুটবলে বড় জয় পেয়েছে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ড সোসাইটি। সোমবার  বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে রশেদুল ইসলাম শুভর জোড়া গোলে ৪-২ গোলের ব্যবধানে হারায় আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে। এদিন ম্যাচে রাহমতগঞ্জ দুই দফা এগিয়ে যাবার পরও ফের সমতায় ফিরেছিল আরামবাগ। কিন্তু শেষভাগে এসে পরপর দুই গোল হজম করার পর আর লড়াইয়ে ফিরতে পারেনি ক্লাব পাড়ার দলটি।

ম্যাচের ১৫তম মিনিটে শুভর গোলে এগিয়ে যায় রহমতগঞ্জ। সোহেলের স্কয়ার পাসের বল প্লেসিং শটে আরামবাগের জালে জড়িয়ে দেন ম্যাচ সেরা স্ট্রাইকার শুভ (১-০)। তবে ৪ মিনিট পরেই নাইজেরীয় স্ট্রাইকার বুকোলা ওলালেকাউয়ের গোলে সমতায় ফিরে আরামবাগ। রবিউল হাসানের কর্নার থেকে নেয়া ক্রসের বল দর্শনীয় হেডের সাহায্যে রহমতগঞ্জের জালে জড়িয়ে দেন বুকোলা (১-১)। প্রথমার্ধের ৪২ ও ৪৪ মিনিটে আরো দুটি গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেছে কোচ কামাল আহমেদ বাবুর শিষ্যরা।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে পুনরায় আরামবাগের শিবিরে হানা দিয়ে সফল হয় রহমতগঞ্জ। ম্যাচের ৫০ তম মিনিটের সময় একটি ফ্রি-কিক থেকে অসাধারণ বাঁকানো শটে গোল করে পুরনো ঢাকার দলকে এগিয়ে দেন নাইজেরীয় ডিফেন্ডার মান্ডে ওসাগি (২-১)।

এর দুই মিনিট আগে অবশ্য তাদের শিবিরে আঘাত হেনেছিল আরামবাগ। সতীর্থের থ্রো-পাস থেকে বক্সে বল পেয়ে যান বুকোলা। এ সময় রহমতগঞ্জের গোলরক্ষক রাজিব ছাড়া বাঁধা দেয়ার আর কেউ ছিল না। কিন্তু বলটি তিনি সেই রাজিবের গায়েই মেরে দিলে নিশ্চিত গোল থেকে বঞ্চিত হয় আরামবাগ।

অবশ্য দ্বিতীয় গোল করেও বেশিক্ষণ তা ধরে রাখতে পারেনি রহমতগঞ্জ। ৭ মিনিটের ব্যবধানে ক্যামেরুন থেকে আনা মিডফিল্ডার ইকাঙ্গা জিনের পেনাল্টিতে ফের সমতা ফিরে পায় আরামবাগ। ৫৫তম মিনিটে মধ্যমাঠ থেকে একাই বল নিয়ে রহমতগঞ্জের ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন ক্যামরুনের মিডফিল্ডার। এক পর্যায়ে তিনি গোলরক্ষককে পাস কাটিয়ে বল জালে জড়াতে গেলে তাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেন এক ডিফেন্ডার। এতে বেঁজে ওঠে রেফারির বাঁশি। পেনাল্টি থেকে ৫৭তম মিনিটে সমতাসূচক গোলটি করেন ইকাঙ্গা (২-২)।

ম্যাচের ৭৭তম মিনিটে ফের এগিয়ে যায় রহমতগঞ্জ। শুভর অসাধারণ এক পাসের বল ব্যাক হেডের সাহায্যে আরামবাগের জালে পাঠিয়ে দেন ঘানাইয়ান স্ট্রাইকার ইসমাইল বাঙ্গুরা (৩-২)। খেলার ৮৩তম মিনিটে শুভ নিজের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করেন ব্যক্তিগত দ্বিতীয় গোলটি আদায়ের মাধ্যমে। মাঠের বাঁ-প্রান্ত দিয়ে তিনি একাই বল নিয়ে প্রতিপক্ষের দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বেশ দক্ষতার সঙ্গে গোলটি আদায় করেন (৪-২)।

বেস্ট বায়োস্কোপ স্পোর্টস
১ আগস্ট ২০১৭

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: