বিপিএল ২০১৭: টানা দ্বিতীয় জয় কুমিল্লা ও খুলনার

বেস্ট বায়োস্কোপ, ঢাকা: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের পঞ্চম আসরে টানা দ্বিতীয় জয় পেয়েছে তৃতীয় আসরের চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও খুলনা টাইটান্স। রবিবার টুর্নামেন্টের দ্বাদশ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৯ উইকেটে হারিয়েছে রাজশাহী কিংসকে আর খুলনা ১৮ রানে হারিয়েছে চিটাগাং ভাইকিংসকে।

দিনের প্রথম ম্যাচে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে চিটাগংকে ১৭১ রানের লক্ষ্য দিয়ে প্রতিপক্ষকে শুরু থেকেই চেপে ধরেছিল খুলনা টাইটানস। খুলনার নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ঢাকায় জয় দিয়ে যাত্রা শুরু করেছে মাহমুদউল্লাহর দল।  চিটাগংকে হারিয়েছে ১৮ রানে।   এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলে ৩ ম্যাচে দুই জয়ে চার পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে খুলনা টাইটানস।

এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিং-এ নেমে ভালো শুরুর ইঙ্গিত দিয়েছিলো রাজশাহী। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মারকুটে ওপেনার লেন্ডল সিমন্সের ব্যাটিং দৃঢ়তায় শুরু থেকেই রানের চাকা সচল ছিলো তাদের। তবে ২৩ থেকে ২৯ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় রাজশাহী। আগের ম্যাচের সেরা মমিনুল ২ ও তিন নম্বরে নামা রনি তালুকদার শূন্য রানে বিদায় নেন।

তারপরও ভড়কে যাননি সিমন্স। দ্রুততার সাথেই রান স্কোর বোর্ডে রান জড়ো করছিলেন তিনি। কিন্তু পঞ্চম ওভারের চতুর্থ বলে হামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়ে মাঠ ছাড়েন সিমন্স। ৬টি চার ও ১টি ছক্কায় ২৩ বলে ৪০ রান করেন তিনি।

তার বিদায়ের পর আফগানিস্তানের দুই স্পিনার অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খানের স্পিন বিষে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে রাজশাহী। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ওভার শেষে ৭ উইকেটে ১১৫ রান করতে পারে তারা। রাজশাহীর এমন স্কোরের পেছনে শেষদিকে বড় ভূমিকা রাখেন ফরহাদ রেজা। আট নম্বরে নেমে ৩০ বলে অপরাজিত ২৫ রান করেন রেজা। কুমিল্লার নবী ৩টি ও রশিদ ১টি উইকেট নেন।

১১৬ রানের জয়ের লক্ষ্যটা স্পর্শ করতে কুমিল্লার ইনিংস শুরু করেন লিটন কুমার দাস ও ইংল্যান্ডের জশ বাটলার। প্রথম ওভার থেকে মাত্র ১ রান নিতে পারেন লিটন।

ঐ ওভারের শেষ ডেলিভারিতে জীবন পান তিনি। দ্বিতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলেও ক্যাচ দিয়ে বেঁচে যান লিটন। জীবন পেয়ে ঐ ওভারে রাজশাহীর ফরহাদ রেজাকে ২টি করে চার ও ছক্কা হাকান লিটন। তবে এরপরই আউট হন তিনি। ১২ বলে ২৩ রান করেন তিনি। দলীয় ২৩ রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর ইমরুলকে নিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন বাটলার। দ্বিতীয় উইকেটে অবিচ্ছিন্ন ৯৭ রানের জুটি গড়েন বাটলার ও ইমরুল।

৪টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩৯ বলে অপরাজিত ৫০ রান করেন বাটলার। ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় ৪১ বলে ৪৪ রান করেন ইমরুল।

বেস্ট বায়োস্কোপ স্পোর্টস
১২ নভেম্বর ২০১৭

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: