এটিপি ফাইনালে অনিশ্চিত নাদাল

বেস্ট বায়োস্কোপ, ঢাকা: বছরের শেষ টুর্নামেন্ট এটিপি ট্যুর ফাইনালের প্রথম ম্যাচে খেলার ব্যপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন রাফায়েল নাদাল। তবে ইনজুরির ভয়ে তিনি অনুশীলনে শতভাগ দিতে পারছেন না বলেও জানান তিনি। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৬ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম বিজয়ী এই স্প্যানিশ তারকা গত সপ্তাহে হাঁটুর সমস্যার কারনে প্যারিস মাস্টার্সের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন। তখনই লন্ডনের টুর্নামেন্টে অংশ নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছিল। সোমবার বেলজিয়ামের ডেভিড গোফিনের বিপক্ষে কোর্টে নামতে যাচ্ছেন নাদাল।

প্রথম ম্যাচের আগে হাঁটুর সমস্যা কাটিয়ে নাদাল পুরোপুরি ফিট কিনা সেটাই এখন গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দেখা দিয়েছে। প্রাক টুর্নামেন্ট সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নাদাল বলেছেন, ‘আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু অনুশীলনে কিছুটা শঙ্কায় রয়েছি। আশা করছি সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। নিজের মধ্যে আত্মবিশ্বাস না থাকলে আমি কখনই এখানে আসতাম না। প্রতিদিনই অনুশীলনে আমি কঠোর পরিশ্রম করছি। শুধুমাত্র টুর্নামেন্টের আগে নিজেকে ফিট করে তোলাই এখন মূল লক্ষ্য।’

আগামী সপ্তাহের ফাইনালে আগে তার হাঁটু সত্যিকার অর্থেই ভাল একটি অবস্থানে আসবে কিনা সে ব্যপারে এখনই কিছু বলা অসম্ভব। বিশ্বের অন্যতম সেরা এই খেলোয়াড় বলেছেন, ভবিষ্যতে কি হবে তা নিয়ে বলা মুশকিল। ভবিষ্যতের কথা না ভেবেই নিজের কাজে প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে।

আদৌ যদি নাদাল এই টুর্নামেন্টে শেষ পর্যন্ত খেলতে না পারে তবে সেটা আয়োজকদের জন্য দু:সংবাদ বয়ে আনবে। ইতোমধ্যেই নোভাক জকোভিচ, এন্ডি মারের মত খেলোয়াড়রা নাম প্রত্যাহার করে নেয়ায় টুর্নামেন্টের আবহ কিছুটা হলেও কমে গেছে।

৩১ বছর বয়সী নাদাল ইনজুরি আক্রান্ত ২০১৬ সাল কাটিয়ে কোর্টে ফিরেই এ বছর ফ্রেঞ্চ ওপেন ও ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতেছেন। দীর্ঘদিন পরে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে আসীন হয়েছেন। বছরের অন্য গ্র্যান্ড স্ল্যাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও উইম্বলডন জয় করা নাদালের দীর্ঘদিনের প্রতিদ্বন্দ্বী রজার ফেদেরারও বলেছেন নাদালের অনুপস্থিতিতে টুর্নামেন্টে উত্তেজনা অনেকাংশেই কমে যাবে। সুইস এই তারকা বলেন, সে বর্তমানে বিশে^র এক নম্বর খেলোয়াড়। এবারের মৌসুমেই সেই সেরা খেলোয়াড়। সে কারনেই তার অনুপস্থিতিতে টুর্নামেন্ট অবশ্যই তার স্বাভাবিক আকর্ষণ হারাবে। আশা করছি সুস্থ হয়ে সে কোর্টে নামতে পারবে।

গত বছরও লন্ডনে খেলতে পারেননি নাদাল। ক্যারিয়ারে এই শিরোপাটি এখনও অধরা রয়ে গেছে এই স্প্যানিশের কাছে। সেমি ফাইনাল ও ফাইনালের আগে দুই গ্রুপে চারজন করে খেলোয়াড় রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে একে অপরের মুখোমুখি হবে। নাদালের গ্রুপে অপর খেলোয়াড়রা হলেন ডোমিনিক থেইম ও গ্রিগর দিমিত্রভ। অন্যদিকে রজার ফেদেরারের প্রতিপক্ষ জ্যাক সক, মারিন সিলিচ ও আলেক্সান্ডার জেরেভ।

বেস্ট বায়োস্কোপ স্পোর্টস
১২ নভেম্বর ২০১৭

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: