শীতে শাড়ির ভিন্নতা

বেস্ট বায়োস্কোপ, ঢাকা: শীত আসছে তার মতো করে গুটিগুটি পা’য়ে। পোশাকে আসছে ভিন্নতা। শাড়ি নির্বাচনেও আসছে পরিবর্তন। শাড়ি মানেই উৎসব মুখর পোশাক যে তা নয়। চাকরিজীবী নারীরাও দেখা যায় অনেকাংশে শাড়ি পরে থাকেন। সাধারণ সময় সুতি বা কটন সিল্ক পরা গেলেও এখন যেহেতু সামনে শীতকাল এ’সময় তো আর এ ধরনের শাড়িতে শীত মানানো যায় না। এজন্য সময়ের জন্য উপযোগী হচ্ছে মণিপুরী শাড়ি, টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি, রাজশাহী সিল্ক। এগুলো দেখতে যেমন ছিম

ছাম, পরেও বেশ আরাম ও শীত নিবারণে সহায়ক!

মডেল: অন্বেষা দত্ত

শীতকাল অনেকটা বিয়ের মৌসুমের। দেখা যায় হলুদ, বিয়ে, বৌভাত প্রতিটা অনুষ্ঠানেই বৌকে শাড়ি পরতে হয়। বিশেষত হলুদে সিল্কের শাড়িগুলো বেঁছে নিলেও শীত নিবারণ হয় না। এজন্য তাঁতের শাড়িটা উপযোগী। এখন অবশ্য বেশিরভাগ হলুদের অনুষ্ঠানেই দেখা যায় বৌ কে তাঁতের শাড়ি পরানো হয়। শীতেও দারুণ আরামদায়ক এই শাড়ি। বিয়ে বা বৌভাতের জন্য আছে কাতান কিংবা বেনারসী।

 

আর বিয়ে তো শুধু কনেই নয়। কনে বা বরের আত্মীয়-স্বজন ও অনেক-ই হলুদ অনুষ্ঠানে শাড়ি বাঁছাই করে থাকে। সেক্ষেত্রেও সুতি বা সিল্ক পরলে সোয়েটারের ঝামেলা থাকে। কারণ প্রায়ই চাদরে শীত মানে না।  সেজন্য তাঁতের শাড়ি, মণিপুরী শাড়ি, মিলের শাড়ি গুলোকে বাছাই করা যেতে পারে। শাড়ির সাথে ফুল স্লিভস ব্লাউজ এবং রঙিন শালও ব্যবহার করতে পারেন। যা অনেকটা ফ্যাশনসম্মত।

মডেল: সাদিয়া তাসনিম অথৈ, পোশাক: চতুষ্কোণ
মডেল: সাদিয়া তাসনিম অথৈ, পোশাক: চতুষ্কোণ

বেস্ট বায়োস্কোপ ফ্যাশন
১০ ডিসেম্বর ২০১৭

ইফফাত আরা ‍মুনিয়া

Latest posts by ইফফাত আরা ‍মুনিয়া (see all)

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: